SSC পর এবার প্রাইমারি টেটেও নিয়োগ দুর্নীতি! চাকরি হারাবেন হাজার হাজার প্রাথমিক শিক্ষক? নতুন তথ্য উঠে এলো

Primary TET Recruitment Scam : ফের চাকরি হারাতে চলেছে হাজার হাজার শিক্ষক! SSC-র পর এবার প্রাইমারী টেট নিয়ে তোলপাড় রাজ্য। বর্তমানে চাকরি দুর্নীতি নিয়ে তোলপাড় আমাদের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য। কিছুদিন আগে SSC দুর্নীতির জেরে চাকরি হারায় ২৬,০০০ শিক্ষক। বাতিল হয় ২০১৬ সালের এসএসসির প্যানেল। পরবর্তীতে ন্যায় বিচারের আশায় সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন শিক্ষকরা। এখনো পর্যন্ত মেলেনি কোনো সুবিচার। এরই মাঝে ফের প্রাইমারী টেট নিয়ে সামনে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য!

সম্প্রতি CBI রাজ্যের বিকাশভবন থেকে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ সম্পর্কিত কিছু নথি উদ্ধার করে। জানা গিয়েছে গোয়েন্দারা রাজ্যের শিক্ষাভবনে টানা ৩ দিন ধরে চালিয়েছেন তল্লাশি। শেষমেষ শুক্রবার বিকাশভবণ থেকে বস্তাভর্তি নথিপত্র উদ্ধার করে নিয়ে যায় সিবিআই। এই তথ্যের সাথেই মিলেছে পরীক্ষার্থী ও চাকরিপ্রাপ্তদের নামের তালিকা। বিশেষজ্ঞ মহলের একাংশের মতে এসএসসির পর এবার টানাপোড়েন শুরু হতে চলেছে প্রাইমারী টেট নিয়ে।রাজ্যে গত ৪টি দফায় প্রায় ৭০ হাজার প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ করা হয়েছে। আইনজীবীদের মতে এসএসসির পর এবার প্রাথমিক শিক্ষকদের ভবিষ্যত নিয়েও অনিশ্চয়তা তৈরী হতে পারে।

রাজ্যে তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পর প্রথম প্রাইমারী টেট পরীক্ষা হয় ২০১৪ সালে। ২০১৪-র টেট পরীক্ষা নিয়ে একাধিকবার ওঠে অনিয়মের অভিযোগ। একাধিকবার হয়েছে কেস। এই ২০১৪ সালের প্রাইমারী টেটের ভিত্তিতে ২০১৬, ২০২০, ২০২২ এবং ২০২৪ সালে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ করা হয়। কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা টেট মামলার পর্যবেক্ষণে জানিয়েছেন যে, টেট মামলার ফল যদি নেতিবাচক হয় তাহলে এর উপর ভিত্তি করে হওয়া সব নিয়োগ মামলা অস্তিত্ব হারাবে।

অবশেষে যারা প্রাইমারি চাকরি পেয়েছেন তাদের ভবিষ্যত অনিশ্চিত এর মধ্যে চলে গেল। এবার বোঝা যাচ্ছে প্রাইমারিতেও যারা দুর্নীতি করে চাকরি পেয়েছে তাদের প্রচুর পরিমাণে চাকরি চলে যাবে। তবে যারা সৎভাবে চাকরি পেয়েছে তাদের চাকরি দেওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। এখন দেখার বিষয় কোর্টের থেকে কি অর্ডার আসে।

তবে একের পর এক যে দুর্নীতি হচ্ছিল এর ফলে রাজ্যের সাধারণ বেকার যুবক-যুবতীরা রাজ্য সরকারের উপর আস্থা হারিয়ে ফেলেছিল। তবে এবার রাজ্য সরকার হয়তো কিছুটা হলেও পরিবর্তিত হয়ে সৎ ভাবে সমস্ত পরীক্ষাগুলো নিতে পারে।

MORE JOB NEWS: CLICK HERE

 আরো বিস্তারিত খবরা খবর পেতে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেল যুক্ত হন।

TELRGRAM CHANNEL:  CLICK HERE

Leave a comment